রাঙ্গুনিয়ায় ৪ মাসে দুই কোটি টাকার গাছ কেটে পাচার হলেও নিরব বনবিভাগ

 রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি:: চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগের ইছামতি রেঞ্জের অধীনে সংরক্ষিত বনাঞ্চলসহ সামাজিক বনায়নের গাছ কেটে বন উজাড় করছে ক্ষমতাসীন দলের আড়ালে ঘাপটি মেরে থাকা কিছু অসাধু নেতাকর্মীরা। বন কর্মকর্তাদের সহায়তায় গত ৪ মাসে মূল্যবান সেগুন, গামারী, গর্জন, মেহগনীসহ ফলজ বিভিন্ন প্রজাতির দুই কোটি টাকার মূল্যের গাছ কেটে সাবাড় করেছে। এভাবে বনাঞ্চলের গাছ উজাড় করলে পরিবেশের উপর বিরম্নপ প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছে পরিবেশবাদীরা।

স্থানীয়রা জানান, গত ৪ মাস ধরে রাজা নগর ইউনিয়নের ঠান্ডাছড়ি, টেকনাফ পাড়া, হাকিম নগর, ২০ নম্বর, ৮ নম্বরসহ বিভিন্ন এলাকার সংরক্ষিত ও অংশীদারিত্ব বনাঞ্চল থেকে কাঠ কেটে পাচার করছে স্থানীয় প্রভাবশালী সিন্ডিকেট। পাহাড় ন্যাড়া করে পরিবেশ বান্ধব এসব মূল্যবান গাছ প্রকাশ্যে কেটে নিয়ে গেলেও স্থানীয় বন বিভাগ নিরব ভূমিকা পালন করছে। সৃজিত সামাজিক বনায়নের মালিক রাজু সওদাগর , রফিক বিন চৌধুরী, নাসের চৌধুরী, শামশুল আলম বাচ্চু সওদাগর, জানান, ক্ষমতাসীন দলের কতিপয় নেতাকমীরা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে প্রকাশ্যে এসব মূল্যবান গাছ কেটে নিয়ে গেলেও এসব প্রভাবশালীদের বিরম্নদ্ধে কিছইু করার সাহস পাচ্ছে না কেউ।

ঠান্ডাছড়ি এলাকার ৬০ বছরের বৃদ্ধ নুরম্নদ্দিন জানান, তার সৃজিত বাগানের সব গাছ কেটে নিয়ে গেছে । তার একমাত্র সম্বল ভিটে বাড়িটিও ৫০ হাজার টাকা দিয়ে বিক্রি করে তাকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। ভিটে বাড়ি হারিয়ে অসহায় পড়েছে বৃদ্ধ দিন মজুর নুরম্নদ্দিন।

এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম উত্তর বনবিভাগের ইছামতি রেঞ্জ কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

 

638 total views, 15 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.