চৌগাছাবাসীর ডিগ্রী কলেজ সরকারিকরণের স্বপ্ন পূরণের পথে আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে শিক্ষক কর্মচারীসহ শিক্ষার্থীদের মধ্যে

ইয়াকুব আলী,ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি ॥ যশোরের ঐতিহ্যবাহি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চৌগাছা ডিগ্রী কলেজ জাতীয়করণের প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভূক্ত করায় চৌগাছাবাসির দীর্ঘ দিনের প্রাণের দাবি পূরণ হতে চলেছে। এ ঘটনায় এ কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনন্দের বন্যা বইছে। এই কলেজ জাতীয় করনের জন্য মাননীয় প্রধান শেখ হাসিনা ১লা জুলাইয়ে স্বাক্ষর করেছে। ২১ থেকে ৩১ শে জুলাইয়ের মধ্যে প্রস্তাবিত সরকারি চৌগাছা ডিগ্রী কলেজের অডিট রিপোর্ট সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিতে হবে । এরপর কলেজের জমি সরকারের নামে রেজিষ্টি প্রক্রিয়া শেষ হলে শিক্ষক-কর্মচারীদের জাতীয় করনের বেতন নিশ্চিত হবে বলে জানাগেছে।
জানাযায়,১৯৭২ সালের জুন মাসে চৌগাছার কয়েকজন শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি এই কলেজটি প্রতিষ্ঠার ইচ্ছা করেন। তাদের মধ্যে কাদের মৃধা, শামছুল আলমসহ জমিদাতা বর্তমান চৌগাছা পৌর মেয়র নূরউদ্দিন আল মামুন হিমেলের চাচা আহসান উল্ল্যাহ ও পিতা ওয়াজি উল্ল্যাহ ৫ বিঘা জমি কলেজের নামে দান করেন। এছাড়া আরো অনেকে এ কাজে এগিয়ে আসেন। শুরু হয় চৌগাছা ডিগ্রী কলেজের অগ্রযাত্রা। এ প্রতিষ্ঠানটি বর্তমানে ৩ একর ১৫ শতক জমি রয়েছে। এখানে শহীদ মশিয়ূর রহমান একাডেমিক ভবন, ছালামত উল্ল্যাহ কলা ভবন ও প্রশাসনিক ভবন রয়েছে। এছাড়া এখানে ১৯৯৫ সালে ৫০ সিট বিশিষ্ট ছাত্রাবাস রয়েছে। বর্তমানে এ কলেজের শিক্ষার্থির সংখ্যা ২৫০২ জন। তন্মধ্যে একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে ৯০৫ জন, ¯œাতক পাশ ও ¯œাতকোত্তর শ্রেণিতে ৪৫৬ জন, অনার্সে ৭ টি বিভাগে ১০৮২ জন শিক্ষার্থি রয়েছে। এছাড়া এখানে কারিগরি বি এম শাখা ও উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত এইচ এস সি ও ¯œাতক কোর্স রয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে এমপিও ভূক্ত শিক্ষক ৩৭ জন, নন এমপিও ভূক্ত ৯ জন, অনার্স ও বি এম শাখায় ২৮ জন, বিভিন্ন বিভাগে ১৪ জন সর্বসাকুলে ৮৮জন শিক্ষক-কর্মচারি কর্মরত রয়েছেন। বর্তমানে এ কলেজের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. মনিরুল ইসলাম মনির। বর্তমান সংসদ সদস্যের সার্বিক প্রচেষ্টায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কলেজকে জাতীয় করণের প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভূক্ত করায় চৌগাছাবাসির মানুষের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। এ প্রতিষ্ঠানটি জাতীয়করণের প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় কলেজের পরিচালনা পরিষদ, শিক্ষক-কর্মচারি, অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও চৌগাছাবাসির পক্ষ থেকে সাবেক সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান, সংসদ সদস্য ও প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক অভিন্দন জানিয়েছেন। এ কলেজের অধ্যক্ষ  জাহিদুর রহমান  উপাধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম কবির জানান, এই কলেজ জাতীয় করনের জন্য মাননীয় প্রধান শেখ হাসিনা ১লা জুলাইয়ে স্বাক্ষর করেছে। ২১ থেকে ৩১ শে জুলাইয়ের মধ্যে প্রস্তাবিত সরকারি চৌগাছা ডিগ্রী কলেজের অডিট রিপোর্ট সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিতে হবে। এরপর কলেজের জমি সরকারের নামে রেজিষ্টি প্রক্রিয়া শেষ হলে শিক্ষক-কর্মচারীদের জাতীয় করনের বেতন নিশ্চিত হবে। আমরা সরকারী নির্দেশনানুযায়ী দ্রুত কাজ করে যাচ্ছি। এ প্রতিষ্ঠানটি জাতীয়করণের প্রক্রিয়ায় অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় কলেজের পরিচালনা পরিষদ, শিক্ষক-কর্মচারি, অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও চৌগাছাবাসির পক্ষ থেকে সাবেক সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান,স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাড.মনিরুল ইসলাম মনির,ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক অভিন্দন জানিয়েছেন।

1,972 total views, 3 views today

1 comment

  1. ইমামুল ইসলাম

    এই প্রতিবেদনে যে কলেজের ছবি দেওয়া হয়েছে ওটা চৌগাছা ডিগ্রি কলেজের ছবি নয়। এটা এস.এম.হাবিব পৌর কলেজের নব নির্মিত ভবনের ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.