দাকোপে দূর্গা পূজা উদ্যাপনে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

বিধান চন্দ্র ঘোষ দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি : সারা দেশের ন্যায় এবারও খুলনার দাকোপ উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় ৭৭টি পুজা মন্ডপে হিন্দুধর্মালম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দূর্গা পূজা উদ্যাপনে প্রস্তুতি চলছে খুব জোরে সোরে। তাই আড়ম্বরের সহিত দূর্গা পূজা অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে প্রতিমা তৈরিতে ব্যাস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা ভাস্কাররা। আগামী ৯ আশ্বিন ও ২৬ সেপ্টেম্বর ষষ্ঠী তিথিতে শ্রী শ্রী শারদীয়া দূর্গাদেবীর ষষ্ঠ্যাদি কল্পারম্ব এবং ষষ্ঠী বিহিত পূজা প্রশস্তার মধ্য দিয়ে এ দূর্গোৎসব শুরু হবে। এবছর দেবী দূর্গার নৌকায় আগমন ও ঘোটকে গমন হচ্ছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে স্থায়ী ও অস্থায়ী এসব সার্বজনীন মন্ডপ তৈরী করে পূজার ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে বলে উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ সূত্রে জানা গেছে। প্রতিমা তৈরিতে মাটির কাজ প্রায় শেষ প্রান্তে, অধিকাংশ মন্ডপে চলছে রং, তুলি দিয়ে প্রতিমা সাজ সজ্জার কাজ। পাশাপাশি আলোক সজ্জা, প্যান্ডেল তৈরি, মন্ডপ ও তার আশে পাশে সাজ সজ্জার কাজসহ নানা কাজেও ব্যাস্ত হয়ে পড়েছেন পূজার সাথে সংশ্লিষ্টরা। সাথে সাথে অন্যরাও পূজার কেনাকাটা করতে শুরু করেছেন। বটিয়াঘাটা উপজেলার খলিসাবুনিয়া এলাকার প্রতিমা তৈরী ভাস্কার কার্তিক চন্দ্র সরদার বলেন প্রতিমা তৈরীতে মাটির কাজ শেষ এখন চলছে রং তুলি দিয়ে প্রতিমা সাজ সজ্জার কাজ। এবার তিনি ৬টি মন্ডপে প্রতিমা তৈরী করেছেন। এতে তিনি প্রায় ৮০ থেকে ৯০ হাজার টাকা পাবেন। দাকোপ থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহাবুদ্দিন চৌধুরী বলেন শান্তিপূর্ণ দূর্গোৎসব পালনের লক্ষে উপজেলার পূজা মন্ডপ গুলোতে যথাযথ নিরাপত্তা দিতে এবং আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে পুলিশ, ব্যাটিলিয়ান আনসার, সাধারণ আনসারসহ মোবাইল টিমের প্রায় পাঁচ শতাধিকেরও বেশী সদস্য মোতায়নে প্রক্রিয়াধীন আছে। উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি ও খুলনা-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ননীগোপাল মন্ডল ও সাধারণ সম্পাদক অসিত বরণ সাহা জানান গোটা উপজেলায় মোট ৭৭টি পূজা মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠানের লক্ষে ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে। সকল অপশক্তি রুখে সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রেখে সবাই মিলে মিশে শান্তিপূর্ণ দূর্গোৎসব পালন করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *