চুয়াডাঙ্গায় পৌর মেয়রের কাছে চাঁদা নেওয়ার সময় সাবেক মন্ত্রীর পিএস পরিচয়ে শ্যামল পরিচয়ে ইমাম হাসান আটক

মোখলেসুর রহমান মুকুল:-সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদের পিএস পরিচয়ে চাঁদাবাজির সময় চুয়াডাঙ্গায় ইমাম হাসান (৩০) নামে এক প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়রের কাছ থেকে অনৈতিক সুবিধা নেওয়ার সময় তাকে আটক করে পুলিশে দেওয়া হয়।
আটক ইমাম হাসান পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গিয়াবলি গ্রামের মৃত মুকুল হাওলাদের ছেলে।
চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু জানান, সোমবার বেলা সাড়ে ১২ টার দিকে নিজেকে সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রীর পিএস শ্যামল পরিচয় দিয়ে আমার কাছে ফোন দেওয়া হয়। বলা হয় মন্ত্রী মহোদয় আপনার সাথে কথা বলবেন। এরপর আরেকজন মন্ত্রী পরিচয় দিয়ে আমার সাথে কথা বলে জানায় আমি একটি ছেলেকে পাঠিয়েছি। তাকে একটু আর্থিকভাবে সহযোগিতা করবা।
মেয়র বলেন, ফোনে কথা বলার ২০ মিনিট পর একটি ছেলে আমার কাছে এসে মন্ত্রীর পিএসের একটি ভিজিটিং কার্ড দিয়ে আর্থিক সহযোগিতা দাবি করে। বিষয়টি আমার সন্দেহ হলে আমি হাছান মাহমুদকে সরাসরি ফোন করলে প্রতারণার বিষয়টি নিশ্চিত হয়। পরে বিষয়টি আমি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করি।
খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ পৌর মেয়রের কার্যালয় থেকে ওই প্রতারককে আটক করে।
চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তোজাম্মেল হক জানান, গ্রেফতারের পর সে স্বীকার করেছে গত এক সপ্তাহ ধরে সে চুয়াডাঙ্গাতে অবস্থান করে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে মন্ত্রীর নাম ভাঙ্গিয়ে চাঁদাবাজি করছে। গত বৃহস্পতিবার সে জেলা প্রশাসকের কাছেও একইভাবে মন্ত্রীর নাম ভাঙ্গিয়ে সহযোগিতার আবেদন করেছে।
তার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *