দামুড়হুদায় ব্যাটারি চালিত গাড়ির দৌরাত্ম্য:যানচলাচলে পথচারীদের চরম দূর্ভোগ

এম বি ফয়সাল তানজীর:দামুড়হুদায় ব্যাটারি চালিত গাড়ির  দৌরাত্ম্যে যানচলাচলে চরম ব্যাহত হচ্ছে।সাধারণ পথচারীদের পড়তে হচ্ছে চরম দূর্ভোগে।দামুড়হুদা বাসষ্ট্যান্ড  সংলগ্ন বট বৃক্ষের পশ্চিমে দামুড়হুদা উপজেলা শহরে আসার মেইন রোডে সারিবদ্ধ ভাবে থাকা অবৈধ যান আলমসাধু,করিমন,লেগুনা ব্যাটারি চালিত থ্রি- হুইলারের কারনে মাঝেমধ্যে ছোট খাটো দূর্ভোগ ঘটেই চলেছে। অতচ এ বিষয়ে দ্বায়িত্বশীলদের নেই কোন  পদক্ষেপ ,নেই কোন ভূমিকা। অবস্থা দৃষ্টিতে মনে হয় দেখার কেউ নেই।সরেজমিন ঘুরে  দেখা গেছে, চুয়াডাঙ্গা – যশোর হাইওয়ে এ রোডের পূর্ব – পশ্চিম দিকের রাস্তায় যএ-তএ যখনতখন ঐ সমস্ত গাড়ির পার্কিং  করে যানজট সৃষ্টি করে রাখা হয়েছে। বেপরোয়া গাড়ি ঘুরানোর  ফলে সচার – আচার ছোট – বড় দূর্ঘটনা ঘটেই থাকে।রাস্তা সংলগ্ন এ সমস্ত জায়গাগুলো এমনকি মূল রাস্তা টাকেই অবৈধ যান- আলমসাধু, করিমন,লাটাহাম্পার,লেগুনা সহ থ্রি  হুইলাদের অ-ঘোষিত স্টপেজ  স্হায়ী স্টপেজ হয়ে দাঁড়িয়েছে।এর প্রধান কারন হলো দামুড়হুদা বাসষ্ট্যন্ডের জাগা সল্পতা।সম্প্রতি দামুড়হুদা উপজেলা   পরিষদের এক কর্মকর্তার গাড়ি চুয়াডাঙ্গা  দিকে যাওয়ার পথে গাড়িটি দামুড়হুদা বাসষ্ট্যান্ডে পৌছালে এক থ্রি – হুইলারের চালক ঐ কর্মকর্তার গাড়িতে  পিছুন দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে ধাক্কা দিতে দেখা যাই।গাড়ি থামিয়ে ঐ গাড়ি থেকে ককর্মকর্তা নেমে আসলে থ্রি – হুইলালের চালক ঐ কর্মকর্তার নিকট ক্ষমা চেয়ে রক্ষা পান। অবশ্য প্রতিনিয়তয় লক্ষ করা যাই যে, রাস্তার দু’ পাশে  যএতএ ট্রাক, বাস সহ অবৈধ গাড়ি  দাঁড়িয়ে থাকায় সাধারন পথচারীদের পড়তে হয় সীমাহীন কষ্টে।এদিকে সচেতন মহলের দাবী এ সকল যানজট নিরসন কল্পে দামুড়হুদা বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন সরকারী জমিতে অবৈধ দোকান পাট  উচ্ছেদ করে নিদৃষ্ট গাড়ির আলাদা  আলাদা স্হানের ব্যবস্থা গ্রহন করলে দামুড়হুদা উপজেলা বাসী দামুড়হুদা বাসষ্ট্যান্ড  সংলগ্ন থেকে যানজট হতে মুক্তি পাবে।এ বিষয়ে   যথাযথ কতৃপক্ষের সু- দৃষ্টি পূর্বক জরুরী  ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জনিয়েছেন  উপজেলা  সচেতন মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.