খানাখন্দকে বেহাল দশায় গফরগাঁও-হোসেনপুর-টোক সড়ক, জনদূর্ভোগ চরমে

রফিকুল ইসলাম খান, গফরগাঁও ( ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা ঃ
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার সদর থেকে হোসেনপুর-টোক সড়কের বেহাল দশায় জনদূর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। ফলে যানবাহন ও পথ চলাচলে এতদাঞ্চলের লক্ষাধিক মানুষকে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তবুও তা সংস্কারে উদ্যোগহীন সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং এলজিইডি। জনগুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটির ২৪ কিলোমিটার পথের অসংখ্য স্থানের কাপেটিং উঠে যাওয়ায় প্রতিদিনই ঘটে চলছে ছোট বড় দূর্ঘটনা। মেরামত বা সংস্কারে প্রশাসনের ভূমিকা না থাকায় জনসাধারণের মাঝে ক্ষোভে সৃষ্টি হয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ ব্যস্ততম সড়কটির বিভিন্ন স্থানেই ইটের খোয়া উঠে গিয়ে তৈরি হয়েছে ছোট-বড় গর্তের। ফলে সামান্য বৃষ্টিতেই সেসব গর্তে পানি জমে থাকছে। দীর্ঘস্থায়ী জমে থাকা পানি ছিটকে পথচারীদের গায়ে লাগায় চলাচলে বিঘœ ঘটছে। বিশেষ করে গড়াবেরবাজার, তেতুলিয়া, দুগাছিয়া, দীঘিরপাড়, গলাকাটাবাজার, পাঁচবাগ এলাকায় সড়কের অবস্থা একবারেই চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বিপাকে পড়েছে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থী, চাকুরীজীবিসহ এলাকাবাসী ও পার্শ্ববর্তী হোসেনপুর, পাকুন্দিয়া উপজেলার থেকে আসা ট্রেনযাত্রীরাও। ফলে এ পথ দিয়ে ঝঁকিপূর্ণ অবস্থায় ব্যাটারিচালিত রিকশা ভ্যান, অটো রিকশা, সিএনি রেগুনা, পিকআপ, মাইক্রোবাস, মালবাহী ট্রাক চলাচল করছে। শাঁখচূড়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ জহিরুল ইসলাম বলেন, দীর্ঘদিন ধরে এ সড়কাট অতিমাত্রায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। তবে কবে নাগাদ সড়কটি সংস্কার করা হবে এমন কোনো আশানুরুপ আশ্বাস পাওয়া যায়নি। উপজেলার লামকাইন গ্রামের বাসিন্দা, পাঁচবাগ ইউনিয়ন যুবলীগ আহবায়ক মাহাবুবুল আলম বলেন, এ সড়কটি দ্রুত সংস্কারের জন্য স্থানীয় এমপির সু-দৃষ্টি কামনা করছি। গফরগাঁবাসী এই সড়কাট অচিরেই সংস্কার করে জনদূর্ভোগের হাত থেকে রক্ষা পেতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.