একদিনের ১৭ উইকেটের পতন!

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্রগ্রাম টেস্টটা তিন দিনেই শেষ হচ্ছে! ব্যাটনম্যানরা যেভাবে স্পিনে বিষে নীল হচ্ছেন তাতে একথা বলাই যায়। চট্টগ্রামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনে ৮ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। শেষটায় তাইজুল-নাঈম দারুণ ব্যাটিং না করলে আরও উইকেট পড়ত। কিন্তু দ্বিতীয় দিনে আর অবাক করার মতো কিছু করতে পারলো না কেউ। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টেস্টের দ্বিতীয় দিনে পড়লো ১৭ উইকেট।

আর এই ১৭ উইকেটই দখলে নিয়েছেন দু’দলের স্পিনাররা। বাংলাদেশের স্পিনাররা নিয়েছেন ১০ উইকেট। আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিনাররা তুলে নিয়েছেন ৭ উইকেট। দুই দলের হাতে আছে আর ১৫ উইকেট। দ্বিতীয় দিনের চেয়ে তৃতীয় দিনের উইকেট হবে আরও কঠিন। আর তাই তৃতীয় দিনে হাতে থাকা ১৫ উইকেট শেষ হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। আর তা হলে তৃতীয় দিনেই শেষ হচ্ছে সাগরিকার টেস্ট।

চট্টগ্রামে টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুর আধ-ঘন্টার মধ্যে বাংলাদেশের হাতে থাকা দুই উইকেট তুলে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নাঈম হাসান এবং মুস্তাফিজুর রহমান ক্যারিবিয় স্পিনার ওয়ারিক্যান্টের শিকার হয়ে ফিরে যান। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটে নামলে শুরু থেকেই তাদের উইকেট তুলে নিতে থাকে বাংলাদেশ। রান করতে হিমশিম খাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটনম্যান হেটমায়ার ঝুঁকি নিয়ে ৬৩ রানের এক ইনিংস খেলেন।

তাদের ১০ উইকেটই নিয়েছেন বাংলাদেশের স্পিনাররা। অভিষেক হওয়া নাঈম হাসান নিয়েছেন ৫ উইকেট। সাকিব আল হাসান ইনজুরি থেকে টেস্টে ফিরেই নিয়েছেন ৩ উইকেট। আর বাকি দুই উইকেট তাইজুলের ও মেহেদি মিরাজের। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটে নামা বাংলাদেশ ৫৫ রানে হারিয়েছে ৫ উইকেট। ওই উইকেটে ভাগ বসাতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোন পেসার। পাঁচ উইকেটই গেছে স্পিনারদের দখলে।

শুরুতে ওপেনার ইমরুল কায়েসকে বোল্ড করে ফেরান দেশটির স্পিনার ওয়ারিক্যান্ট। এরপর রেস্টন চেজের স্পিনে নীল হন সৌম্য। তিনে নামা মুমিনুল ফেরেন স্পিনার চেজের বলে। ওয়ারিক্যানের বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এরপর দেবেন্দ্র বিশুর বলে বিভ্রান্ত হয়ে বোল্ড হন মোহাম্মদ মিঠুন। উইকেটের যে আচরণ দুই দলের হাতে থাকা ১৫ উইকেটের প্রায় সবই যাবে স্পিনারদের পকেটে এ কথা বলা তাই বাড়াবাড়ি নয়।

5,415 total views, 11 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.