লোহাগড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভেঙ্গে পড়লো ছাদের পলেস্তারা

জহুরুল হক মিলু , নড়াইল প্রতিনিধি :
নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বুধবার(১৫ মে) ডায়রিয়া ওয়াডের ছাদের পলেস্তারাও ভেঙ্গে পড়েছে। এঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে রোগী ও তার স্বজনেরা। সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

ডিগ্রীরচর গ্রামের রনজু শেখের স্ত্রী শিলা জানান, আমি লোহাগড়া হাসপাতালের পুরাতন দোতলাভবনে ডায়রিয়া ওয়াডে শিশুপুত্র জুনায়েত কে নিয়ে বেডের উপর বসেছিলাম। হঠাৎ ওই বেডের ওপরে উপর থেকে ছাদের পলেস্তারা ভেঙ্গে পড়ে।

এদিকে, গত সোমবার দুপুরে পুরুষ ওয়ার্ডে ছাদের পলেস্তারা ভেঙ্গে পড়েছিল। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছিলেন অনেক রোগী। বুধবার হাসাপাতালের দোতলায় অন্তত ৫০ জন রোগী ভর্তি ছিল। আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, হাসপাতালের দ্বিতীয় তলার ছাদের অধিকাংশ স্থানে ফাঁটল ধরেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা(টিএইচএ) ডাঃ লুঃফুন নাহার জানান, গত সোমবার পুরুষ ওয়ার্ডে ছাদের পলেস্তারা ভেঙ্গে পড়ার খবর মিডিয়ায় প্রচারের পরে মঙ্গলবার(১৪মে) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের যশোর বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী শামসুল আলম এবং যশোর-নড়াইলের সহকারী প্রকৌশলী তানজিলা ফেরদৌসী সহ অন্যান্য কর্মকর্তরা হাসপাতালের পলেস্তারা ভেঙ্গেপড়াস্থল পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে তাঁরা মন্তব্য করেন, পুরুষ ওয়াডে সবগুলো নবধস ও ঈৎধপশ দেখা যাচ্ছে, যা ভবিষ্যৎ বড় ধরনের ভবন ধ্বসের পূর্বলক্ষণ। এছাড়াও ছাদে ও বিভিন্ন স্থানে পলেস্তারাসহ ঈড়হপৎবঃব খুলে আসছে। পুরুষ ওয়াডের ব্লকটি ঝুঁকিপূর্ণ থাকায় ব্যবহার না করবার সুপারিশ সহ রোগী স্থানান্তরেরও সুপারিশ করেছেন তাঁরা।

অভিযোগ উঠেছে, উর্দ্ধতন কর্মকর্তরা পরিদর্শন করতে এসে গাফিলতি করেছেন। স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের যশোর বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী শামসুল আলম হাসপাতাল পরিদর্শনের কথা স্বীকার করে বলেন, ওই পুরাতন ভবনটি পরিত্যাক্ত ঘোষণা করলে রোগীদের স্থানান্তরের ব্যবস্থা করতে হবে। সে জন্য নতুন ভবন দরকার পড়বে। স্থানীয় এমপি মহোদয় চেষ্টা করলে নতুন ভবন আনা সম্ভব।

598 total views, 3 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.