মহেশপুরে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে নির্যাতন


মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের মহেশপুরে যৌতুক লোভী স্বামীর শারীরিক ও মানুষিক অত্যাচারে এক গৃহবধূ ঘরছাড়া। প্রথম স্ত্রীকে না জানিয়ে ২য় বিয়ে করায় আদালতে মামলা দায়ের।
এলাকাবাসী ও মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০০৭ সালের ২৭শে জুন উপজেলার বাগদিরআইট গ্রামের মৃত জিয়ারত আলীর ছেলে জামাল উদ্দিনের সাথে একই উপজেলার সামন্তা ষাটনলপাড়ার মৃত আবু তাহেরের মেয়ে লিমা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবীতে লিমার স্বামী তাকে অমানুষিক নির্যাতন করতো। গত ২৩শে মে স্বামীর নির্মম নির্যানের শিকার হয়ে সে মহেশপুর হাসপাতালে ভর্তি হয়।
লিমা খাতুন জানায়, বিয়ের পর থেকে তার স্বামী তাকে যৌতুকের কারনে সব সময় নির্যাতন করতো। ইতিমধ্যে যৌতুকলোভী স্বামীকে দেড় লাখ টাকা ও আসবাবপত্র দিয়েছে তারপরও ২ লাখ টাকা দাবী করলে দিতে না পারায় তাকে নির্মম নির্যাতন করা হয়। সে আরো জানায়, তার ৬ বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। তাকে না জানিয়ে তার স্বামী একই গ্রামে ২য় বিয়ে করেছে। অসহায় মেয়েটি বর্তমানে বাবার বাড়ীতে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যৌতুক নিরোধ আইনে গত ২০শে মে মামলা করেছে। যার নং-মহেশ/পি-৭৭/১৯। বিজ্ঞ আদালত মহেশপুর থানাকে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নির্দেশ দিয়েছে। মহেশপুর থানার কর্তব্যরত এএসআই সিরাজ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.