ফেসবুক এর মাধ্যমে হারানো স্ত্রী খুজে পেল স্বামী

আরিফ হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :বিশ্বের সব চেয়ে বড় সোস্যাল নেটওয়ার্ক ফেসবুকের মাধ্যমে  হারানো ১০ দিন পর  সন্তান আর স্ত্রীর মাঝে বিভক্ত পরিবার আবার একত্রিত হলো।

১০ দিন আগে ট্রেন থেকে নেমে নিখোঁজ হবারর  পর গৃহবধু বিজলী আক্তার (৪১)কে খুজে পেয়েছেন তার স্বামী দলিম উদ্দীন। ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের জিয়াখোর গ্রামে বাড়ী এই দম্পত্তির। গত ২৯ জুন বিভিন্ন গণমাধ্যমে “ট্রেনে হারিয়ে ফেলা স্ত্রীকে এক সপ্তাহ ধরে খুজছেন স্বামী” শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।
গতকাল রবিবার (৩০ জুন) রাত সাড়ে ৯টার সময় ঢাকা থেকে একটি নৈশ্য কোচ ঠাকুরগাঁও শহরে পৌছে দিলে কয়েকজন প্রতিবেশীর নজরে পড়ে। সংবাদে থাকার ছবির সাথে মিল খুজে পেলে তাকে অটোচার্জার যোগে বাড়ীতে পৌছে দেন।
গৃহবধু বিজলী আক্তার জানান, ফুলবাড়ী ষ্টেশনে পানি পান করার জন্য নেমে পড়েন তিনি। পানি পান করে পুনরায় ট্রেনে উঠার আগেই ট্রেনটি ছেড়ে দেয়। পরের একটি ট্রেনে উঠে তিনি বাড়ীতে ফেরার চেষ্টা করলেও সেই ট্রেনটি পুনরায় তাকে নিয়ে যায় ঢাকা শহরে। ঢাকায় কয়েকটি নৈশ্য কোচে বাড়ীতে ফেরার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন তিনি। অবশেষে গত গত ২৯ জুন সন্ধ্যায় তিনি একটি নৈশ্য কোচে উঠে রংপুর শহর পর্যন্ত আসেন। সেখান থেকে ঠাকুরগাঁও আসার চেষ্টা করলে একটি নৈশ্য কোচ তাকে পঞ্চগড়ে নিয়ে যায়। পরে পঞ্চগড়ের কয়েকজন সংবাদ উল্লেখিত বিবরণ অনুযায়ী গৃহবধুর মিল পেয়ে তাকে ঠাকুরগাঁওয়ের একটি বাসে তুলে দেন।
তিনি বলেন, রবিবার সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও শহরে পৌছাইলেও বাড়ী ফেরার জন্য কোন রাস্তা মনে পড়ছিল না তার। পার্শ্বের গ্রামের কয়েকজনে শহরে ব্যক্তিগত কাজ শেষে ফেরার পথে গৃহবধুকে দেখলে তাকে অটোবাইক যোগে বাড়ীতে পৌছে দেন।
মাকে ফিরে পেয়ে প্রাণ ফিরেছে ওই গৃহবধুর দুই সন্তানের। স্বস্তি ফিরেছে ওই পরিবারে। গণমাধ্যমে বিষয়টি প্রকাশের পর গৃহবধু বাড়ীতে ফেরাতে খুশি এলাকার সাধারণ মানুষগুলোও।
গৃহবধুর স্বামী দলিম উদ্দীন জানান, গণমাধ্যমে বিষয়টি না আসলে আমি আমার স্ত্রীকে খুজে পেতাম না। স্ত্রীকে ফিরে পাওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ সহযোগিতা করেছেন গণমাধ্যম ও স্থানীয় প্রশাসন। এজন্য সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা।
বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি মোসাব্বেরুল হক বলেন, প্রশাসন ও গণমাধ্যম একযোগে কাজ করলে অনেক সমস্যা দ্রুত নিরসন সম্ভব। গৃহবধুর বাড়ীতে ফেরা বিষয়টি তার প্রমাণ।
প্রসঙ্গত গত ২১ জুন দুই সন্তানসহ পরিবার নিয়ে ঢাকা থেকে ট্রেনে ঠাকুরগাঁও রোড রেলষ্টেশনে আসার পথে গৃহবধু বিজলী আক্তার(৪১) কে হারিয়ে ফেলেছেন স্বামী। প্রায় ১০ দিন ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় ও দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন রেলষ্টেশনে খোজাখুজি করেন স্বামী দলিম উদ্দীন। শুক্রবার (২৯জুন) রাতে বালিয়াডাঙ্গী থানায় একটি সাধারণ ডাইরী করলে বিষয়টি তুলে ধরে গণমাধ্যম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.