কালীগঞ্জে দ্বিতীয় দফায় অবৈধ স্থাপনায় উচ্ছেদ অভিযান চালালো পৌরসভা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি॥
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ পৌরসভা দ্বিতীয় দফায় অবৈধ স্থাপনায় উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে। বুধবার দিনব্যাপী পুরাতন বাজার, কালীবাড়ী মোড়, মুরগীহাটা মোড়, কলেজরোড, থানা রোড, নীমতলা বাসস্ট্যা-ে এ অভিযান চালায়। নোটিশ জারি ও মাইকিং করার পরও যারা তাদের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেনি তাদের স্থাপনাগুলি স্কেভেটর (ভেকু) মেশিন দিয়ে ভেঙ্গে দেয়া হয়।
তবে অধিকাংশ অবৈধ স্থাপনার মালিকরা তাদের দোকানপাট, বাড়ি-ঘর, পাকা বিল্ডিং নিজেরাই ভেঙ্গে নেয়। তবে হাটচাঁদনীর মোড়ের রাস্তার উপর বহুল আলোচিত ও সমালোচিত ফরিদ উদ্দীন বিল্ডিংটি গতবারে ভেঙ্গে দেওয়ার পর এলাকার প্রভাবশালীদের টনক নড়ে।
বুধবারের আলোচিত ভাংচুরের মধ্যে রয়েছে নলডাঙ্গা রোডের (মাছ বাজার সংলগ্ন) উপর নির্মিত রফি মিয়ার তিনতলা বিল্ডিং। দেখা গেছে, রাস্তার উপর এই তিনতলা বিল্ডিংটি নিজেরাই ভেঙ্গে নিচ্ছে।
অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন কালীগঞ্জের সাধারণ নাগরিক। তারা জানান, অবৈধ স্থাপনা দখলমুক্ত করার মাধ্যমে রাস্তা এখন বড় হবে। সাধারণ মানুষ স্বাচ্ছন্দে চলাফেরা করতে পারবেন। যানজট নিরসন হবে।
কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ জানান, জনস্বার্থে যানজট নিরসন, রাস্তা প্রশস্তকরণ ও ফুটপাত নির্মাণের জন্য এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। উচ্ছেদ অভিযানের দুই মাস আগে শহরে মাইকিং করা হয়। যেসব প্রভাবশালী দখলদাররা তাদের অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেয়নি তাদের অবৈধ স্থাপনা গুলি ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে এবং ভাঙ্গার খরচও ওইসব প্রভাবশালীদের বহন করতে হবে। উচ্ছেদ অভিযানের সময় স্থানীয় থানা পুলিশ ও পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.