রাঙ্গুনিয়ায় পদুয়া রক্তদান সংস্থার বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি :
রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নে পদুয়া রক্তদান সংস্থার উদ্যোগে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৬ জুলাই) দক্ষিণ রাঙ্গুনিয়া পদুয়া ডিগ্রি কলেজের হলরুমে দিনব্যাপী এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন কলেজের অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর হোসেন কাজী। এসময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্ঠা মুহাম্মদ রাসেল, মো. লোকমান হাকিম, সভাপতি দিদারুল আলম আজাদ, সাধারণ সম্পাদক মো. রবিউল হোসেন লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন, প্রচার সম্পাদক ইয়াছিন আরফাত মিজান প্রমুখ। কর্মসূচিতে কলেজের তিন শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থীর বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করা হয় । রক্তের গ্রুপ নির্ণয়কালে রক্তের গ্রুপ, নাম ও ফোন নম্বর লিখে প্রত্যেককে একটি তালিকা তৈরি করে দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনের সময় যেন রক্তদাতা খুঁজে পেতে বেগ পেতে না হয় এবং মানুষের মাঝে রক্তের ব্যাপারে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্য নিয়েই এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে বলে জানায় আয়োজকরা। রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করতে আসা শিক্ষার্থীরা নিজ ও অন্যের রক্তের প্রয়োজনে রক্ত দেবেন বলে জানান।
আয়োজকরা জানান, মানবদেহের অন্যতম মৌলিক উপাদান রক্ত। রক্তের অভাবে অনেক সময় অকালে ঝড়ে পড়ে তাজা প্রাণ। “প্রাণের তরে প্রাণ, রক্ত করিব দান” শ্লোগানকে ধারণ করে গত ১ বছর আগে পদুয়া রক্তদান সংস্থার যাত্রা শুরু হয়েছে। এই সংগঠনের উদ্যোগে বিনামূল্যে মূর্মুর্ষ রোগীদের রক্তের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয় এবং ব্লাড ক্যাম্পিং করে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে দেওয়া হয়। শুরুতে গুটি কয়েকজন সদস্য নিয়ে এই সংগঠনের যাত্রা শুরু হলেও এখন প্রায় ৮শত সদস্য রয়েছে তাদের। “আস্থার মুখে হাসি ফুটানো হয় যদি মানবতা, তারই সেবক হলো প্রতিটি রক্তদাতা” এই মূলমন্ত্রে স্বেচ্ছায় রক্তদানকে সামাজিক আন্দোলন হিসেবে গড়ে তোলাই তাদের মূল উদ্দেশ্য বলে জানান সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

রাঙ্গুনিয়ায় গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি :
রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সরফভাটা ইউনিয়নের মরাখাল এলাকা থেকে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে সাড়ে ৭শত গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়। তাঁর নাম কবির আহম্মদ (৪৫)। সে ওই এলাকার মৃত লেদু মিয়ার পুত্র। সে দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসায় চালিয়ে আসছিল বলে অভিযোগ করছেন স্থানীয়রা। শনিবার (৬ জুলাই) দুপুরে তাঁকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজাতে প্রেরণ করে পুলিশ।
রাঙ্গুনিয়া থানার এসআই ইসমাঈল হোসেন জুয়েল জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদে উপজেলার সরফভাটা ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ড এলাকায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানকালে ওই এলাকার মরাখাল সংলগ্ন নুরুল আমিন সওদাগরের বাড়ির সামনে থেকে মাদক বিক্রিকালে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী কবির আহমদকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাঁর কাছ থেকে দুই প্যাকেটে ৫০০ গ্রাম গাঁজা এবং ৭৩ টি পুরিয়া (প্যাকেট) করে বিক্রির জন্য রাখা আরও ২৫০ গ্রাম গাঁজা পাওয়া যায়। আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে ২০১৫ সালের একটি মামলা ছিল। তার বিরুদ্ধে থানায় আরো একটি মামলা দায়ের করে জেল হাজাতে প্রেরণ করা হয়েছে। পদুয়া ইউনিয়নের খুরুশিয়া এলাকা দিয়ে উপজাতিয় মাদক ব্যবসায়ীরা সড়ক ও নৌকা যোগে পূর্ব সরফভাটা মরাখালের মুখ এলাকায় এবং চট্টগ্রাম শহর থেকে গোডাউন দিয়ে মাদক আমদানি করে সে নিয়মিত বিক্রি করে আসছিল বলে স্বীকারোক্তি দেয়। তাঁর সাথে জড়িত মাদক ব্যবসার মূল হোতাদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে বলে জানায় পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.