মহেশপুরে এখনও ধান ক্রয় সম্পন্ন হয়নি

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি : মহেশপুরে আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় কৃষকদের কাছ থেকে এখনও ধান ক্রয় সম্পন্ন হয়নি। ধান বিক্রি করতে না পেরে কৃষকরা দিশেহারা।
এ বছর মহেশপুর থানায় ধান উৎপন্ন হয়েছে ১লক্ষ ২২ হাজার মে.টন তার বিপরীতে দুইবারে ১৫শ ৫৯ মে.টন সরকারীভাবে ধান ক্রয় করার কথা। গত ৩ মাস পেরিয়ে গেলেও মাত্র ২শ ৬২ মে.টন ধান ক্রয় করা হয়েছে যা খুবই সামান্য। নানা সমস্যায় কৃষকরা ধান বিক্রি করতে না পেরে দিশেহারা হয়ে পড়েছে।
মহেশপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা তাজ উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বর্ষার কারনে বাতাসের আদ্রতা বেড়ে যাওয়ায় ধানের মোর্চা বেড়ে যাচ্ছে যে কারনে ধান ক্রয় ধীর গতিতে হচ্ছে। আবহাওয়া অনুকুলে আসলে আবারও জোরে-সোরে ধান ক্রয় করা হবে। কিন্তু চাষীদের বক্তব্য ভিন্ন। তারা বলছে নানা ধরনের অযুহাত সৃষ্টি করে ধান ক্রয় বিলম্ব করা হচ্ছে। যা পরবর্তীতে তাদের ধারনা দালালদের মাধ্যমে ক্রয় করা হতে পারে। অভাবের তাড়নায় আগামী এক মাসের মধ্যে চাষীদের হাতে বিক্রি করার মত কোন ধান মজুদ থাকবে না। চাষীদের দাবী সহজভাবে ইউনিয়ন পর্যায়ে থেকে ধান ক্রয় হলে দালালরা কোন সুযোগ পাবে না। এখনও ১২৯৭ মে.টন ধান ক্রয় বাকী রয়েছে। সিংহভাগ ধান ক্রয় করতে বাকী থাকায় সচেতন মহল হতাশা ব্যক্ত করেছে। অপদিকে ১৮০৫ মে.টন চাল ক্রয়ের সিদ্ধান্ত থাকলেও মৌসুম শেষ হয়ে গেলেও ৩০৫ মে.টন চাল ক্রয় এখনও বাকী রয়েছে।
এ বিষয়ে ক্রয় কমিটির উপদেষ্টা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাড. শফিকুল আজম খান চঞ্চলের সাখে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ধান ক্রয়ের সব ধরনের সহযোগিতা আমরা করছি তারপরও আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় ধান ক্রয় বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.