শ্রীপুরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন, কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা

শ্রীপুর গাজীপুর থেকে মো: আকতার হোসেন :
শ্রীপুর স্বামীর হাতে স্ত্রী হত্যা কলেজ ছাত্র পরীক্ষায় ফেল করায় ছাত্রের আতœহত্যা ও শিশু ধর্ষণের চেষ্টা পুলিশ যুবককে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরন করে। গত ৮ ই জুলাই রাত্রে কোন এক সময় হত্যা এবং আতœহত্যার ঘটনা ঘটে। একই দিনে বাক প্রতিবন্ধী শিশুকে খেলার মাঠ থেকে বাড়ীতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। জানা গেছে উপজেলা রাজাবাড়ী ইউনিয়নের ধলাদিয়া মধ্যে পাড়া সাইফুল ইসলামের ভাড়াটিয়া নান্দাইল থানার এলাকা মো: সিদ্দিক এর মেয়ে লাভনী একই উপজেলার মামুনের সাথে বিবাহ হয়। গাজীপুর উপজেলার শ্রীপুর উপজেলা ঐ গ্রামের স্থানীয় মোজা ফ্যাক্টরীতে নিহত লাভনী (১৯) চাকুরী করিত। স্ত্রীর বেতনের টাকা স্বামীকে না দেওয়ার কারনে ঐ রাতেই কোন এক সময় শ্বাসরোধ করে হত্যা করে স্বামী মামুন পালিয়েছে। থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করে। এস.আই আমিনুল জানান, মামলার প্রস্তুতি চলছে। স্বামী ঘটনার পর থেকেই পালিয়ে গিয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে হত্যা না আতœহত্যা তা বুঝা যাইবে।
একই উপজেলার গোসিংগা ইউনিয়নের সাভারচালা গ্রামের কলেজ ছাত্রের আতœহত্যার ঘটনা ঘটে।
নিহত আব্দুল্লাহ আল সোহান (১৭) গোসিংগা ইউনিয়নের সাভারচালা গ্রামের সাখাওয়াত হোসেনের পুত্র। সে পাশ্ববর্তী কাপাসিয়া উপজেলার শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরকারী কলেজের (হাইলজোর কলেজের) এইচ.এসসি ১ম বর্ষের ব্যবসা শিক্ষা শাখার ছাত্র ছিলো।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম জানান, নিহত ছাত্র এ বছরের এইচএসসি ১ম বর্ষ ফাইনাল পরীক্ষায় ইংরেজি বিষয়ে ফেল করেছিল। এমন অবস্থার কারন জিজ্ঞেস করলে সে তার বাবাকে জানায়, এক বিষয়ে পাশ করেনি বলে তাকে এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষে যাওয়ার সুযোগ হবেনা বলে জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। বাবা তাকে সান্তনা দিয়েছিলেন। তবে গতকাল রাতের কোন এক সময় তার থাকার ঘরের বৈদ্যুতিক পাখার সাথে ঝুলে আতœহত্যা করে। ভোরে তার থাকার ঘরের দরজা বন্ধ ও ডাকাডাকি করে কোন শব্দ না পেয়ে জানালা দিয়ে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়া হয়। খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়।

পৌর এলাকার জিওসী গ্রামের আলম হোসেনের মেয়ে বাক প্রতিবন্ধী (১২) কে একই এলাকার মারফত আলীর পুত্র আলাউদ্দিন (৫০) শিশু বাক প্রতিবন্ধী মেয়েকে গত ৮ জুলাই দুপুরে খেলার মাঠ থেকে ডেকে নিয়ে ঘরের ভিতরে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা কারে। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন আগাইয়া এসে উদ্ধার করেন। থানা পুলিশ খবর পেয়ে লম্পট আলাউদ্দিনের বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনা মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.