ঘোড়াঘাটে প্রাণি সম্পদের উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রযুক্তির সম্প্রসারণ ঘটেছে

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) থেকে শহিদুল ইসলাম আকাশ :
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলায় উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মামুন অর রশিদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় প্রাণি সম্পদের উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রযুক্তির সম্প্রসারণ ঘটেছে। ডাঃ মামুন অর রশিদ ২০১৬ সালে আগষ্ট মাসে যোগাদনের পর থেকে, গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া, হাঁস, মুরগী পালন, দুগ্ধ উৎপাদন ও ঘাস উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রাণি সম্পদের সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি বিভিন্ন ক্ষেত্রে উত্তরোত্তর উন্নয়ন ও উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। ডাঃ মামুন অর রশিদ বলেন, পূর্বের তুলনায় ঘোড়াঘাট উপজেলায় গবাদি পশু ও হাঁস মুরগী এবং দুগ্ধ উৎপাদন ব্যাপক বৃদ্ধি পেয়েছে। এ উপজেলায় কৃষকের সংখ্যা ১২৩৮৯ জন। চাষযোগ্য জমি ৩০৫৯২ একর, গবাদি প্রাণির পরিমাণ গরু ৬৬৫৯৪টি, মহিষ ১১৩টি, ছাগল ২০২৪২টি, ভেড়া ১০৫৩১টি, ঘোড়া ৩৬টি, শুকুর ১৪৯৭টি, মুরগী ৩০৭৬৭৪টি, কবুতর ১৩৩৯২টি। খামারীর সংখ্যা গাভীর খামার- ২০টি, ছাগল খামার- ২০টি, ভেড়ার খামার- ১০টি, মহিষের খামার- ২টি, মুরগীর খামার- ৩৫টি, হাঁসের খামার- ৩৫টি, কোয়েল পাখির খামার- ৬টি, কবুতর খামার ১২টি। বিশেষ করে এ উপজেলায় হাঁস উৎপাদনে চাষীরা বিপ্লব ঘটিয়েছে। ৩৮ একর জমিতে ৯৭ জন চাষী ঘাস চাষ করেছে। এ ছাড়াও কৃত্রিম প্রজনন রোগ প্রতিরোধে প্রতিষেধক ব্যবস্থায় বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে কৃত্রিম প্রজনন সেবা ২৩৬০টি গবাদি পশুর কৃত্রিম প্রজননের আওতায় আনা হয়েছে। রোগ প্রতিরোধের লক্ষ্যে গবাদি পশুকে ৫৫ হাজার মাত্রা ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে এবং হাঁস মুরগীকে দেয়া হয়েছে ৪ লক্ষ মাত্রা ভ্যাকসিন। গবাদি পশুর সংক্রামক রোগ অনুসন্ধানের লক্ষ্যে ৫৫টি নমুনা গবেষনাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রশিক্ষণ কৃষক পর্যায়ে ২৯০ জন কৃষককে প্রশিক্ষণ প্রদান ও উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে। ৮০টি গবাদি পশুর খামার ও পোল্ট্রির খামার পরিদর্শন করা হয়েছে। সফল খামারি এবং সফল কৃষককে ভাল কাজের জন্য পুরুস্কৃত করা হয়েছে।

ঘোড়াঘাটে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত
ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) থেকে শহিদুল ইসলাম আকাশ ঃ
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের আয়োজনে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস/১৯ উদযাপন উপলক্ষ্যে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বর থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তার নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীটি উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হল রুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ওয়াহিদা খানমের সভাপতিত্বে এক আলাচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রাফে খন্দকার সাহানশা। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ নূর নেওয়াজ আহম্মেদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহফুজার রহমান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুশিনা সরেন, ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আমিরুল ইসলাম, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার (অঃ দাঃ) মোঃ আব্দুল মতিন, ১নং বুলাকীপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাহফুজার রহমান লাবলু প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের ভালো কাজের জন্য মাঠ কর্মীদের মাঝে সনদ বিতরণ করেন প্রধান অতিথি ও সভাপতি। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন, উপজেলা পঃ পঃ অফিসের ফার্মাসিস্ট রেজাউল করিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.