মধুখালীতে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষনে সংবাদ সম্মেলন

সাগর চক্রবর্ত্তী, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধি ঃ ফরিদপুরের মধুখালীতে বেদখলকৃত নিজের বাড়ি উদ্ধারের দাবীতে ও প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগী আব্দুল খালেক শেখ।
গতকাল সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায় উপজেলার গাজনা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের চরলক্ষীপুর গ্রামের বেদখলকৃত নিজের বাড়ির সামনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভূক্তভোগী আব্দুল খালেক শেখের মেয়ে ফাতেমা সুলতানা জুথি।
আব্দুল খালেক তার লিখিত বক্তব্যে বলেন চরলক্ষীপুর মৌজার এস এ খতিয়ান -১৫৬, বি এস -৪৭, এস এ দাগ ১৬৪৮ ও বিএস ২৫০৮ দাগে ১৪ শতাংশ জমির মধ্যে ৬ শতাংশ জমি আমার নামে দলিল কৃত।
স্থানীয় একটি কুচক্রি মহলের প্রোরচনায় আমার বড়ভাই আক্কাস আলী শেখ অত্যাচার নির্যাতন করে আমার নিজ নামীয় দলিল কৃত বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে করে রাতের অন্ধকারে ঘর পুড়িয়ে দখল করে নিয়েছেন।
এখন আমি আমার পরিবার নিয়ে অন্যের জমিতে পাঠ কাটির ঝুপড়ি ঘর বানিয়ে মানবেতর জীবন জাপন করছি। আমার দুটি কন্যা ফাতেমা সুলতানা জুথি ও রহিমা সুলতানা সাথী গাজনা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী এবং আমার একমাত্র ছেলে কলেজে লেখাপড়া করে। একটু বৃষ্টি হলেই লেখাপড়া দুরের কথা রাতে ঘুমানোর কোন ব্যবস্থা থাকে না। এই অবস্থায় আমার সন্তানদের লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়া দুঃরহ। বিষয়টি নিয়ে আমি দীর্ঘ ৪/৫ বছরের অধিক সময়ে প্রশাসন ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সদস্যসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিদের দ্বারেদ্বারে ঘুরে কোন প্রতিকার পাই নাই। আমি আপনাদের মাধ্যমে আমার বাড়ির জমি (ভিটা) পিরে পেতে পারি এবং ঘর করে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বসবাস করতে পারি তার ব্যবস্থা করতে প্রশাসন ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, সদস্যসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিদের কাছে জোর দাবি রাখছি।
উল্লেখ্য আব্দুল খালেক শেখের বড় ভাই আক্কাস শেখের ডাকাতি মামলা পরিচালনা করার জন্য খালেক শেখের ১৮ শথাংশ জমি বিক্রয় করা হয় আক্কাসের ফিড়ে দেওয়ার শর্তে কিন্ত আজ পর্যন্ত ফেরৎ দেন নাই ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মধুখালী পৌর প্যানেল মেয়র মির্জা আব্বাস হোসেন, কাউন্সিলর মোঃ আনিসুর রহমান লিটন,গাজনা ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড সদস্য আলমগীর হোসেন মন্ডল, মোঃ আক্তার হোসেন মোল্যা, মোঃ বাদশা শেখ, মোঃ ইউনুস আলী শেখ ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিগন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.