প্রিয়া সাহাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা কোন উদ্দেশ্যে সংখ্যালঘু নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন, সে বিষয়ে জানতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। শনিবার ঢাকায় নিজের বাড়িতে সাংবাদিকদের প্রশ্নে একথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘এ ধরনের খবর দেওয়ার পেছনে তার নিশ্চয়ই একটি কারণ ও উদ্দেশ্য রয়েছে। দেশে আসলে নিশ্চয়ই তাকে জিজ্ঞাসা করব। তার উদ্দেশ্যটা কী, এটাই এখন আমাদের দেখার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রিয়া যা বলেছেন সম্পূর্ণ অসত্য ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। কেন তিনি অন্য রাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতির কাছে এসব কথা বলে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপচেষ্টা করেছেন সে বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এর পরই তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ওয়াশিংটন ডিসিতে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী ‘ধর্মীয় স্বাধীনতায় অগ্রগতি’ শীর্ষক এক আন্তর্জাতিক সম্মেলন হয়। সেখানে অংশ নেন প্রিয়া সাহা। এরপর গত বুধবার হোয়াইট হাউজে গিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহা অভিযোগ করেন, বাংলাদেশে প্রায় ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান নিখোঁজ হয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা আমাদের বাড়িঘর খুইয়েছি। তারা আমাদের বাড়িঘর পুড়িয়ে দিয়েছে, তারা আমাদের ভূমি দখল করে নিয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো বিচার পাইনি।

কারা নিপীড়ন চালাচ্ছে? ট্রাম্পের এমন প্রশ্নের জবাবে প্রিয়া সাহা বলেন, দেশটির মুসলিম মৌলবাদীরা এসব করছে। তারা সবসময় রাজনৈতিক আশ্রয় পাচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার করা অভিযোগের সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই। বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে এমন কোনো তথ্য বা পরিসংখ্যান নেই যাতে ৩ কোটি হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষ নিখোঁজ হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.