ডা. খোরশেদুল আলমের উপর হামলার প্রতিবাদ চুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশনের প্রতিবাদ অব্যাহত,

ডেক্স : চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এর মেডিকেল মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ খোরশেদুল আলমের উপর ছাত্র নামধারী কতিপয় সন্ত্রাসী কর্তৃক বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে এবং হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবিতে চুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশনের উদ্যোগে দ্বিতীয় দিনের মত ধারাবাহিক কর্মসূচি পালন অব্যাহত রয়েছে। আজ ৩০ জুলাই (মঙ্গলবার), ২০১৯ খ্রি. দ্বিতীয় দিনের মত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে। অফিসার্স এসোসিয়েশনের প্রতিবাদ সংহতি জানিয়ে একাত্মতা প্রকাশ করেছে চুয়েট স্টাফ এসোসিয়েশন। একইসাথে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স এসোসিয়েশনও এই হামলার প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বিবৃতি প্রদান করেছেন। এতে হামলায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শান্তি, আজীবন বহিষ্কার, ছাত্রত্ব বাতিল ও মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণসহ নানা দাবি জানানো হয়।

প্রতিবাদ কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন চুয়েট স্টাফ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক জনাব মাসুদ হোসেন রুবেল, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জনাব আবুদল আল হান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক জনাব বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য। এদিকে সংহতি প্রকাশের জন্য স্টাফ এসোসিয়েশনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন চুয়েট অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি প্রকৌশলী সৈয়দ মোহাম্মদ ইকরাম, সহ-সভাপতি জনাব আমিন মোহাম্মদ মুসা এবং বর্বরোচিত হামলার শিকার চুয়েটর মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ খোরশেদুল আলম।

মানবন্ধনে বক্তারা বলেন, আজকের মধ্যে দাবি মেনে নেওয়া না হলে আগামীকাল বুধবার ও বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই-০১ আগস্ট) টানা দুইদিন সকাল ৯টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত অর্ধদিবস প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে। তৃতীয় দফায়ও দাবি মেনে নেওয়া না হলে আগামী ৪ আগস্ট (রবিবার) হতে অনির্দিষ্টকালের জন্য পূর্ণদিবস কর্মবিরতি ও প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। কর্মসূচিতে চুয়েটে কর্মরত সর্বস্তরের অফিসারগণ অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.