হাদীসের ভুল ব্যাখ্যা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, আহত ৪০

বাজিতপুর সংবাদদাতা :
কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর পৌরশহরের রাবারকান্দি ও বলিয়াদী ইউনিয়নের উছমানপুর গ্রামবাসীদের মধ্যে হাদীসের ভ‚ল ব্যাখ্যা নিয়ে সংঘর্ষে অন্তত ৪০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে মোঃ ফিরোজ মিয়া (৪২), আজিম মিয়া(৩৭), মোঃ ফজলুর রহমান (৫৮), মোঃ নাঈম মিয়া (২৩), হারিছ মিয়া (৫৮), ওয়াজ উদ্দীন (৪০), সাকিব মিয়া (২৬), আলমগীর মিয়া (৩৮), আব্দুর রহিম (৬০), রাব্বী মিয়া (২০), জিল্লু মিয়া (৪৮), লিটন মিয়া (৩৫), রুবেল মিয়া (৩০), ঝুটন মিয়া (৪৫), নেহার মিয়া (৫৫), সুমন মিয়া (১৮), হারুন মিয়া (২২), রাকিব মিয়া (২১), ফয়েজ উদ্দিন (২২), হৃদয় মিয়া(২৩), আজমল মিয়া (৪৫)। এই ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা হতে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত উছমানপুর গোলাপ মিয়ার মার্কেটের সামনে। এ ঘটনায় ৮/১০ টি দোকান ভাংচুর হয়েছে। এতে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ২০ লক্ষ টাকা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ খবর পাওয়ার পর বাজিতপুর থানার পুলিশ, কিশোরগঞ্জ হতে দাঙ্গাপুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এলাকাবাসী ও থানা সূত্রে জানা গেছে, পৌর শহরের রাবারকান্দি ও বলিয়াদীর উছমানপুর কয়েকশ গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্রসজ্জিত হয়ে হামলা চালিয়ে খলিল মিয়ার দোকান, মনির মিয়ার দোকান, আলী এরশাদের মুরগরি ফার্ম, জুয়েলের মুরগির দোকান, আলমগীরের ২টি গ্যারেজ, মঞ্জুর মিয়ার হোটেল, উছমানপুর আলী আশরাফ মার্কেটের ৭টি দোকানের সার্টার ও আরও অন্যান্য মার্কেট ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা হতে সারা রাত পর্যন্ত উছমানপুরের কয়েকটি মার্কেটের মালিক ও দোকানীরা রাত্রি যাপন করে পাহাড়া দিয়ে আসছে। দুটি গ্রামের লোকজন আতংকের মধ্যে আছে বলে জানা গেছে। বাজিতপুর থানার ওসি মোঃ খলিলুর রহমান পাটুয়ারী, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ছারওয়ার আলম সন্ধ্যার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এখনো পর্যন্ত কোনো পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.