অবশেষে পিছু হটলেন ঝিনাইদহ ডিপিও শিক্ষিকার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ উপজেলার ভালাইপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা নার্গিস সুলতানার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নিলেন ঝিনাইদহ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার।
জানা গেছে, গত ৩০ শে জুলাই ভালাইপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার(ডিপিও) আক্তারুজ্জামান পরিদর্শনে যান। এ সময় তিনি ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীদের ইংরেজী পড়া রিডিং পড়তে দেয়। ছাত্রাত্রীরা ঠিক মত পড়তে না পারায় ঐ বিষয়ের শিক্ষিকা নার্গিস সুলতানাকে বহিষ্কার করে। ঐ বহিস্কারের চিঠি বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরন করা হয়। এক পর্যায়ে চিঠিটি ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। চিঠিতে ২২ জায়গায় ভুল ধরা পড়ে এবং ফেসবুকে ঝড় উঠে। স্থানীয় শিক্ষক সমিতি বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহরের দাবীতে রবিবার ডিপিও’র বিরুদ্ধে কর্মসূচী ঘোষনা করে। দুপুর ২টার মধ্যে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা না হলে বিকাল সাড়ে ৪টায় মহেশপুর উপজেলা চত্বরে মানববন্ধন কর্মসূচী ঘোষনা করে।
ডিপিও আক্তারুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষক সমিতিরি নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে উক্ত শিক্ষিার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যহার করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়। কেন্দ্রীয় শিক্ষক সমিতির সিনিয়র সহ-সম্পাদক আব্দুল হক এ প্রতিবেদককে জানায় দ্বিপাক্ষিক আলোচনার প্রেক্ষিতে কর্মসূচী স্থগিত করা হয়েছে এবং বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে।
এ বিষয়ে উক্ত শিক্ষিকা নার্গিস সুলতানা জানান, ডিপিও সাহেব ভুল শিকার করে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নিয়েছে।
প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের খুলনার উপ-পরিচালক মেহেরুননেছার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ডিপিও আক্তারুজ্জামান ভূলে ভরা যে চিঠি দিয়েছে সে বিষয়ে মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন একজন ডিপিও’র বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের এখতিয়ার আমার নেই তবে তিনি বিষয়টি উর্ধ্বতন মহলকে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.