শৈলকুপায় আ’লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে ৫০ আহত ৩০টি ঘরাড়ি ভাংচুর

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামে আওয়ামীলেিগর দুই গ্রুপের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এক সংঘর্ষে ১০ মহিলাসহ উভয় পক্ষের অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় প্রায় ৩০টি বাড়িঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। রবিবার সকালে উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহত অবস্থায় ৬ জনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। বাকিদের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শৈলকুপা থানার ওসি বজলুর রহমান জানান, সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ইউপি সদস্য ইসরাইল ও একই দলের গ্রাম্য মাতব্বর মতিয়ার রহমানের সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এরই জের ধরে শনিবার তিনজনের ওপর অতর্কিত হামলার ঘটনা ঘটে। রোববার সকালে উভয় পক্ষ ঢাল-সড়কিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে ১০ নারী ও বৃদ্ধসহ উভয় পক্ষের অর্ধশতাধিক লোক আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ওই গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান পিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। গ্রামবাসি সুত্রে জানা গেছে, শৈলকুপা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শিকদার মোশাররফ হোসেন সোনা এবং সাধারণ সম্পাদক ও মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফা আরিফ রেজা মন্নুর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উপজেলা নির্বাচনের পর থেকেই বিরোধ চলে আসছে। তারই জেরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.