নভেম্বরের মধ্যে ৬ দফা দাবি পূরণ না হলে অবরোধসহ কঠোর আন্দোলন -অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ

প্লাবন শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে পৃথক পৃথক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গতকাল সোমবার ফুলবাড়ী কয়লাখনি বিরোধী ট্র্যাজেডি দিবস পালন করা হয়েছে।
দিবসটি পালনের জন্য ফুলবাড়ী উপজেলা শাখা তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির উদ্যোগে সকাল সাড়ে ১০টায় স্থানীয় নিমতলা মোড় থেকে তেল গ্যাস জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদের নেতৃত্বে একটি শোক র‌্যালী পৌর শহরে বের করা হয়। র‌্যালী শেষে ২০০৬ সালের ২৬ আগস্ট আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সদস্যদের গুলিতে নিহত আমিন, সালেকীন ও তরিকুলের শহীদ বেদীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।
শেষে স্থানীয় নিমতলা মোড়ে উপজেলা শাখা তেল গ্যাস জাতীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মো. হামিদুল হকের সভাপতিত্বে কয়লাখনি বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মোহাম্মদ। এছাড়াও রাখেন জাতীয় গণফ্রন্টের টিপু বিশ্বাস, সিপিবি’র শাহিন রহমান, জাতীয় গণফ্রন্টের টিপু বিশ্বাস, ওয়ার্কার্স পার্টির সৈয়দ মোসাদ্দেক হোসেন লাবু, কমিউনিস্ট লীগের নজরুল ইসলাম, গণসংহতি আন্দোলনের জোনায়েদ সাকী, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির আনছার আলী দুলাল, বাসদ (খালেকুজ্জামান) এর কিবরিয়া হোসেন, বাসদ (মাকর্সবাদী) শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, স্থানীয়দের মধ্যে এসএম নূরুজ্জামান জামান, শফিকুল ইসলাম শিকদার, কমল চক্রবর্তী, সঞ্জিত প্রসাদ জিতু, গণসংহতি আন্দোলনের নাজার আহম্মেদ প্রমুখ।
সমাবেশে অধ্যাপক আনু মুহম্মদ বলেন, দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ ও প্রতিরোধের মুখে এশিয়া এনার্জি ফুলবাড়ীর কয়লা সম্পদ লুটপাট করতে পারছে না। খনি বিরোধী আন্দোলনকে নস্যাৎ করার জন্য আন্দোলনকারী নেতাকর্মীদের নামে দুইটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানী করছে এশিয়া এনার্জি। তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৬ দফা চুক্তিকে সমর্থন দিলেও ক্ষমতায় গিয়ে সেই চুক্তি বাস্তবায়নে কোন ভূমিকা নিচ্ছেন না।
এ সময় অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ এশিয়া এনার্জির দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারসহ ৬দফা সমঝোতা চুক্তির পূর্ণবাস্তবায়নের দাবিতে আগামী ২৩ অক্টোবর মানববন্ধন, বিক্ষোভ-সমাবেশসহ প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান, আগামী নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে দিনাজপুর অভিমুখে পদযাত্রার কর্মসূচি ঘোষণা করেন।
এদিকে সম্মিলিত অরাজনৈতিক পেশাজীবী সংগঠন ও ফুলবাড়ীবাসী নামের সংগঠনের ব্যানারে ফুলবাড়ী পৌর মেয়র ও সম্মিলিত পেশাজীবী সংগঠনের আহবায়ক মুরতুজা সরকার মানিকের নেতৃত্বে সকালে পৌর শহরে শোক র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালী শেষে শহীদ বেদীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।
থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, দিবসকে কেন্দ্র করে আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক ও শান্তিপূর্ণ রাখতে গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ মোতায়েনসহ সার্বক্ষণিকভাবে টহল দেয়।
উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ২৬ আগস্ট তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির উদ্যোগে বহুজাতিক কোম্পানী এশিয়া এনার্জির ফুলবাড়ী অফিস ঘেরাও কর্মসূচি চলাকালে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের গুলিতে আমিন, সালেকীন ও তরিকুল নামের তিন যুবক নিহত এবং তিন শতাধিক নারী ও পুরুষ আহত হন। তখন থেকে এই দিনটিকে ফুলবাড়ী ট্র্যাজেডি দিবস হিসেবে পালন করা হয়ে আসছে। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.