নাটোরের গুরুদাসপুরের ৪ আসামীকে গ্রেফতার : পুলিশ সুপারের প্রেসব্রিফিং

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের গুরুদাসপুরের দস্যুতা মামলার ৪ আসামীকে গ্রেফতার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূরক জবানবন্দী শেষে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা এ তথ্য জানান।
প্রেস ব্রিফিংয়ে বলা হয় গত ২০ আগস্ট গুরুদাসপুর ব্র্যাক খুবজীপুর শাখা ব্যবস্থাপক মুক্তার হোসেন ও হিসাব কর্মকর্তা জেয়াহেরুল হক মানিক মোটরসাইকেল যোগে উপজেলার চাঁচকৈড় জনতা ব্যাংক শাখায় টাকা জমা দিতে যাচ্ছিলেন। পথে আনন্দনগর এলাকায় মুখোশ পরিহিত তিন ব্যক্তি মোটরসাইকেল যোগে এসে তাদের পথ রোধ করে চাপাতি দ্বারা উপর্যুপরি কুিপয়ে তাদের কাছে থাকা ৬ লাখ ৪৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে গুরুদাসপুর থানায় মামলা হলে পুলিশ অভিযানে নামে। এক পর্যায়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৪ আগস্ট রাজবাড়ি জেলার দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আনাস আলী ও শ্যামল আলীকে গ্রেফতার করে। তাদের দেওয়া তথ্যমতে একই এলাকা থেকে ২৫ আগস্ট আজাদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। তাদের দ্ওেয়া তথ্যমতে ২লাখ ৯হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।
এ ছাড়া গ্রেফতারকৃত আনাস ও আজাদুলকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে স্বীকার করে যে চলতি বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারী তারা  একই উপজেলার জ্ঞানদানর গ্রামে প্রাণ প্রাণ ডেইরি হাবে টাকা দিতে যাওয়ার সময় গুরুদাসপুর শাখার দুইজন কর্মচারীকে চাপাতি দিয়ে ভয় দেখিয়ে শুভ ও নাসির ৫লাখ ৩৮ হাজার ৩৩৬ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় নাসির উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সেও আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দীতে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.