কুলিয়ারচরে তিনদিনব্যাপী ফলদ ও বৃক্ষ মেলা-২০১৯ উদ্বোধন 

মোঃ নাঈমুজ্জামান নাঈম, কুলিয়ারচর : কুলিয়ারচর কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের আয়োজনে  ২৭ আগস্ট  ২০১৯ খ্রিঃ সকাল ১১ টায়, কুলিয়ারচর  উপজেলা সদর বীর প্রতীক শহিদ সেলিম স্মৃতি সংসদ প্রাঙ্গনে তিন দিনব্যাপী ফলদ ও বৃক্ষ মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করা হয়।  “ পরিকল্পিত ফল চাষ যোগাবে পুষ্ঠি সম্মত খাবার” এই স্লোগান নিয়ে তিন দিনব্যাপী “ফলদ ও বৃক্ষ মেলা-২০১৯” এর আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন করেন, প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  আলহাজ্ব ইয়াছির মিয়া।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, কুলিয়ারচর , কিশোরগঞ্জ । তিনি তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, আমাদের খাদ্য চাহিদা মিটলেও পুষ্টির অভাব রয়েছে। ফলের চাষ না করলে আমাদের পুষ্টির অভাব পূরণ করা সম্ভব হবে না। তিনি কৃষিতে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের উপর বিশেষ জোর দেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান  আলহাজ্ব ইয়াছির মিয়া বলেন, দেশী ফল বাজার থেকে না কিনে গাছ লাগিয়ে উৎপাদিত ফল খেতে হবে । তিনি  “পরিকল্পিত ফল চাষ যোগাবে পুষ্ঠি সম্মত খাবার” প্রতিপাদ্যের বিশ্লেষন করে এর গুরুত্ব তুলে ধরেন। তিনি সকলকে বেশি করে বৃক্ষ রোপণ করার  আহ্বান জানিয়ে মেলার শুভ উদ্ভোধন ঘোষনা করেন।
“ফলদ ও বৃক্ষ মেলা-২০১৯” এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কাউসার আজিজ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কুলিয়ারচর , কিশোরগঞ্জ । অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা আ,লীগ সহ-সভাপতি  এবং সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব মোঃ জিল্লুর রহমান, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান  সৈয়দ নুরে আলম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদা খানম মুক্তা, ফরিদপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহ আলম, সার ডিলার কামরুজ্জামান বাচ্চু, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম আবিরাজ মাস্টার, বীর মুক্তিযোদ্ধা মঞ্জুর আহমেদ প্রমুখ  । অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা দিলরুবা আক্তার, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোসাঃ খাদিজা আক্তার, জাইকা সমন্বয়কারী রোজী পারভীন, একাডেমিক সুপারভাইজার মুশফিকুর রহমান, পিডিবিএফ কর্মকর্তা নাছিমা আক্তার, বেগম নুরুন্নাহার পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিয়ার রহমান  ও  ব্লক সুপারভাইজার, কৃষকসহ গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন, সহকারী কৃষি অফিসার শাহ আলম ।
মেলায় বিভিন্ন জাতের ফলদ ও ঔষধী গাছের ১২ টি ষ্টল অংশগ্রহণ করেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.